জামিয়া সংবাদ

কুরআন-সুন্নাহর শাসনব্যবস্থা আগামী পৃথিবীর ভবিষ্যৎ : মাওলানা মুসা বিন ইজহার

কুরআন-সুন্নাহর শাসনব্যবস্থা আগামী পৃথিবীর ভবিষ্যৎ : মাওলানা মুসা বিন ইজহার

কুরআন-সুন্নাহর আইন অনুযায়ী যে শাসনব্যবস্থা, সেটিই আগামী পৃথিবীর ভবিষ্যৎ বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকার আরমানীটোলা মসজিদের খতিব এবং জামিয়া নূরিয়া ইসলামিয়ার উস্তাদ মাওলানা মুসা বিন ইজহার। তিনি বলেন, কুরআন-সুন্নাহর শাসনব্যবস্থা আগামী পৃথিবীর ভবিষ্যৎ। ইমাম মাহদী আসবেন। সে পর্যন্ত আমাদের সংগ্রাম চলবেই।

বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে জামিয়া নূরিয়া ইসলামিয়ার বার্ষিক মাহফিলে বাদ এশার বয়ানে তিনি এসব কথা বলেন।

বস্তুবাদী শিক্ষার কড়া সমালোচনা করে তিনি বলেন, শিক্ষা সভ্যতার বিকাশে সহায়ক হলেও এ শিক্ষায় শিক্ষিতরা খুনী-দাগী সন্ত্রাসীদেরও কলমের এক খোঁচায় মুক্ত করে দেয়। যারা দুর্নীতি করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে, এরা কেউই মাদরাসার ছাত্র নয়। এরা বস্তুবাদী শিক্ষাব্যবস্থার ফসল।

সম্রাট নেপোলিয়ন বোনাপার্টের উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, ‘নেপোলিয়ন বলেছিলেন, আমাকে একজন আদর্শ মা দাও, আমি তোমাদের একটি আদর্শ জাতি উপহার দেব। কিন্তু সেটা কোন শিক্ষা ব্যবস্থা?’

মাওলানা মুসা বলেন, উপমহাদেশের প্রাচীন শিক্ষাব্যবস্থা হচ্ছে কওমিধারার শিক্ষাব্যবস্থা। প্রচলিত শিক্ষাব্যবস্থা হচ্ছে ইংরেজদের প্রবর্তিত। এতে উপনিবেশিক মন-মানসিকতা লালন করা হয়। মনস্তাত্ত্বিকভাবে দাসসুলভ মানসিকতায় বিশ্বাসী একদল আজ্ঞাবহ ভৃত্য তৈরি করছে এ শিক্ষাব্যবস্থা।

এর আগে, খতমে কোরআন ও খতমে বুখারি উপলক্ষে ওয়াজ ও দোয়ার মাহফিল শুরু হয় বাদ আসর। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকেই নূরিয়ায় মেহমানরা আসতে থাকেন। বাদ আসর বয়ান করেছেন জামিয়া কাসিমুল উলুম আল ইসলামিয়া, আমিন বাজার, ঢাকার মুহতামিম মাওলানা ইমরান কাসেমী। বাদ মাগরিব বায়তুল মামুর জামে মসজিদ, সায়েন্স ল্যাবরেটরি, ঢাকার খতিব শায়খ মাওলানা হাসান জামিল।

মাহফিলে সভাপতিত্ব করছেন বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমিরে শরিয়ত ও জামিয়া নূরিয়া ইসলামিয়ার মহাপরিচালক মাওলানা আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী।